কেমব্রিজ অ্যানালিটিকাকে সাসপেন্ড করল ফেসবুক

ফেসবুক পলিসি ভায়োলেশন। ছবিঃ টেক আপডেট

ডেটা অ্যানালাইসিস কোম্পানি কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা ও এর সহযোগী স্ট্র্যাটেজিক কমিউনিকেশন্স ল্যাবরেটরিজ (এসসিএল) গ্রুপকে সাসপেন্ড করেছে ফেসবুক। ২০১৬ সালে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ডেটা অ্যানালাইসিস টিম হিসেবে কাজ করেছিল এই দুই কোম্পানি। নিউ ইয়র্ক টাইমস ও গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে কোম্পানি দুটি ৫০ মিলিয়ন ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য অবৈধ উপায়ে সংগ্রহ করে নিজেদের কাছে লুকিয়ে রেখেছিল।

এই দুই কোম্পানির কাছে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তথ্য দিয়েছে বাইরের রিসার্চার আলেক্সান্ডার কোগান। তিনি গ্লোবাল সাইন্স রিসার্চ কোম্পানিতে কাজ করতেন।

ফেসবুক কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা ও এসসিএল গ্রুপকে সাসপেন্ড করার ঘোষণা দেয়ার কয়েক ঘন্টা পরেই নিউ ইয়র্ক টাইমস ও গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় ও ৫০ মিলিয়ন ব্যবহারকারীর তথ্য ফাঁস হয়েছিল দাবি করা হয়। ফেসবুক তাদের প্রেস রিলিজে বলেছে ০.২৭ মিলিয়ন ব্যবহারকারীর তথ্য নেয়া হয়েছে একটা অ্যাপ ব্যবহার করার মধ্য দিয়ে। সাধারণ অ্যাপ ডেভেলপারদের মতোই কোগান দিস ইজ ইয়োর ডিজিটাল লাইফ  নামের একটি ফেসবুক অ্যাপ ডেভেলপ করেন। অ্যাপটি প্রকাশ করার সময় বলা হয়েছিল সাইকোলজিস্টদের রিসার্চের জন্য বানানো অ্যাপ এটি। এরপর ব্যবহারকারীরা সজ্ঞানেই তাদের ফেসবুক প্রোফাইল ব্যবহার করে অ্যাপটিকে ব্যক্তিগত সব তথ্য জানার সুযোগ করে দিয়েছিল।

কিন্তু এই তথ্য শেষ পর্যন্ত কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা, এসসিএল গ্রুপ ও ইউনোয়া টেকনোলজিসের ক্রিস্টোফার ওয়াইলির কাছে পৌঁছায়। এটা ফেসবুকের ডেটা পলিসিকে লংঘন করে। যার কারণে ফেসবুক কোম্পানিগুলোকে সাসপেন্ড করেছে।

৫০ মিলিয়ন ব্যবহারকারীর তথ্য ফাঁস হয়েছে এটা বলেছে ক্রিস্টোফার ওইয়াইলি। গার্ডিয়ান ও নিউ ইয়র্ক টাইমস ওয়াইলির দেয়া তথ্য অনুসারেই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেখানে ওয়াইলি বলেছে আমেরিকান ভোটারদের টার্গেট করে তাদের মনোভাব পরিবর্তন করার জন্যই এসব তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে।

ফেসবুক অবশ্য আরেকবার তাদের ব্লগপোস্ট আপডেট করে বলেছে এটাকে তথ্য চুরি বা ফাঁসের ঘটনা বলা যাবেনা। কারণ ফেসবুক অ্যাপ ব্যবহার করার সময় অ্যাপকে তথ্য ব্যবহার করার জন্য অনুমতি ব্যবহারকারীরাই দিয়ে থাকে।

সোর্সঃ  ফেসবুকগার্ডিয়াননিউ ইয়র্ক টাইমসওয়্যারড



আপনার মন্তব্য

মন্তব্য করার পূর্বে মনে রাখুন এডিটোরিয়াল টিম সাইটে কমেন্ট মডারেশন করছে। কোন ধরনের মন্তব্য করা যাবেনা তা জানতে মন্তব্যের নীতিমালা দেখুন। আপনার ইমেইল অ্যাড্রেস প্রকাশ করা হবেনা।